কিভাবে চটজলদি রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করা হয়?

কোনো রক্তের গ্রুপিং এর জন্য অন্ততপক্ষে তিনবার রক্ত পরিক্ষা করা দরকার।তিনবার রক্ত পরিক্ষার পরে নিশ্চিত ভাবে বলা যায় রক্তের গ্রুপ।তাই এই পরিক্ষার পর আপনাকে অবশ্যই আরো দুটো হসপিটাল কিংবা টেস্টিং সেন্টার এ গিয়ে রক্ত পরিক্ষা করার পরামর্শ থাকবে।কারণ অনেক সময় পরিক্ষায় ত্রুটি থাকলে সঠিক গ্রুপ নির্ণয় করা যায় না।

 

রক্তের গ্রুপ

ব্লাড গ্রুপিংয়ের জন্য যা দরকার

 

১। ব্লাড গ্রুপিং এর ৩টি এন্টি! Anti-A Anti-B Anti-D

২। জিবানু মুক্ত একটি সুচ

৩। একটি কাচের স্লাইড

৪। তুলা

৫। জিবানু নাশক

 

প্রথমে যার ব্লাড গ্রুপ নির্বাচন করা হবে তার হাতের যে কোন একটি আঙ্গুল ভালো করে জিবানু মুক্ত করে নিতে হবে , তারপর সুচ দিয়ে আঙ্গুল এর মাথায় হাল্কা খোচা দিয়ে কাচের স্লাইড এ ৩ ফোটা রক্ত নিতে হবে , তারপর ১ম রক্তের ফোটায় Anti A, ২য় রক্তের ফোটায় Anti B, ৩য় রক্তের ফোটায় Anti D দিয়ে ভাল করে সুচ দিয়ে মেশাতে হবে । খেয়াল রাখবেন রক্ত ও এন্টি মেশানোর সময় একটি অন্যটির সাথে যেন না মিশে।

এবার কিভাবে বুঝবেন কোনটি কোন গ্রুপ?

আসুন দেখে নি :

১। Anti -A ফাটে + Anti-B না ফাটে = রক্তের গ্রুপ A

২। যদি Anti-A না ফাটে + Anti -B ফাটে = রক্তের গ্রুপ B

৩। যদি Anti- A এবং Anti-B দুইটাই ফাটে = রক্তের গ্রুপ AB

৪। যদি Anti-A এবং Anti-B একটা ও না ফাটে = রক্তের গ্রুপ O

আমরা গ্রুপ নির্বাচন শিখলাম।

চলুন এবার পজেটিভ নেগেটিভ কিভাবে বুঝবো সেটা দেখি :

Anti-D…….. যদি ফেটে যায় = রক্ত +(positive)

Anti-D……… যদি না ফাটে = রক্ত —(negative)

 

রক্তের গ্রুপ জানা না থাকলে আজই টেস্ট করে ফেলুন।কারণ যেকোনো সময় হয়তো আপনার রক্ত লাগতে পারে।তখন রক্তের গ্রুপ টেস্টিং এ সময় অপচয় হবে না। ভালো লেগে থাকলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here