২১ ফ্রেব্রুয়ারি ২০৫৫ ।

বাংলাদেশ স্পেস সেন্টার থেকে আজ যাত্র করবে আমাদের প্রথম প্যাসেঞ্জার নিয়ে যাওয়া স্পেস শাটল কসমো ২৩১২ । কসমো ২৩১২ এর একটা বিশেষত্ব হচ্ছে এটি সকল প্রকার দুর্যোগ মোকাবেলা করতে সক্ষম । কোনো স্টেরয়েড এর ক্ষতি করতে পারবে না যতোক্ষণ পর্যন্ত আল্লাহ না চান । আরো একটা বিশেষত্ব হচ্ছে এটি নিজেকে নিজেই রিপেয়ার করতে পারবে । এর জন্য কসমোতে নিয়োগ দেয়া আছে প্রায় সাড়ে ৫ হাজার ইমার্জেন্সির মেক্যানিক্যাল রোবট, এদেরকে মেক্যানিক্যাল বট ও বলা হয় । এছাড়াও এতে আছে মেডিক্যালবট,কুকবট,ক্লিনিংবটসহ প্রায় ৩ হাজার বট । এদের কাজ এক একটা মানুষের মতো । সুরক্ষা দেয়ার জন্য রয়েছে স্পেশাল অার্মিবট যারা সংখ্যায় যাত্রীদের সংখ্যার দ্বীগুন।রোবট গুলো ন্যানোটেক হওয়াতে এরা খুব অল্প জায়গা ব্যবহার করে কসমোর । তাই রোবট সংখ্যা নিয়ে অত চিন্তার কিছু নেই ।

Cosmo 2312 Bangladesh by Maruf Shahrier
Its a science friction written by Maruf Shahrier

কসমোর কমান্ড ডেক এ আছে বাংলাদেশর সবচেয়ে সেরা কিছু মানুষ যারা কসমো প্রজেক্ট এর প্রথম দিন থেকে নিরলস কাজ করে আসছেন । সকাল ১০টায় যাত্রীদের রিপোর্টিং টাইম আজ । প্রায় সবাই চলে আসতে শুরু করেছে । প্রথম যাত্রায় ১৫ হাজার যাত্রী যাচ্ছেন । সবার ডাটাবেজ চেক করা হয়েছে । পৃথিবীর সকল রেকর্ড আজ থেকে বাতিল বলে ঘোষণা করা হবে এবং এদের সবার একটি একটি করে নতুন স্পেস রের্কড তৈরি করে হবে । পুরো ব্যাপারটি হবে সম্পূর্ণ আটিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স এর মাধ্যমে । আটিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স নতুন প্রোফাইলে ক্রিয়েট করার সময় একটা প্যাসেঞ্জার এর মধ্যে কিছু ভুল তথ্য পেলো।ন্যাশনাল ডাটাবেজ চেক করে ইরোর সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে সাথে সাথে কনট্রোল রুমে বার্তা পাঠিয়ে দিয়েছে।সাথে সাথে প্যাসেঞ্জারটিকে ধরে নিয়ে যাওয়া হলো।যাকে ধরে নিয়ে যাওয়া হলো সে হচ্ছে একজন কুখ্যাত ক্রিমিনাল । ন্যাশনাল ডাটাবেজ ওভাররাইট করে আউটারস্পেস এ চলে যেতে চেয়েছিলো ।

 

পুরো ১৫ হাজার মানুষ এর নতুন স্পেস প্রোফাইল তৈরি হয়ে গেলো মাত্র কয়েক মিনিটে । সবাইকে দুটো করে একসেস কার্ড দেয়া হলো । যা ব্যবহার করে কসমোর ভেতরে প্যাসেঞ্জাররা চলাচল করবেন । সবার হাতে একটি করে কোর্ড প্রিন্ট করে দেয়া হয়েছে যা প্যাসেঞ্জার কার্ড না থাকলে ব্যবহার করতে পারবে । এটি এক্টিভেইট তখনই হবে যখন আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স এটি ব্যবহার করার দরকার মনে করবে । কার্ড ওভাররাইট করার অনেক টেকনিং থাকায় নিরাপত্তার জন্য এই ব্যবস্থা ।

……চলবে….. © মারুফ শাহরিয়ার

 

© কপিরাইট ২০২০ লেখক ছাড়া অন্য কেউ লেখাটি পোস্ট,পরিবর্তন,সংযোজন,বিয়োজন করার অধিকার রাখে না

Hi There! I am Maruf Shahrier, I am a professional designer,content creator and aslo i am the founder of Book Hunter,which works to encourage people to read and share new knowledge. You can find me on facebook & instagram

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here