কিছু মৃত্যুর আগে ও পরে
লেখক: তাসীন

মানুষ মারা গেলে সাধারণত আমার কান্না পায়না,

আমি শুধু দেখি আশেপাশের শোকার্ত মানুষের

ব্যার্থ চিৎকার

আর কাপড়ে মোড়ানো সুন্দর মৃতদেহটি।

দেখে শোকাগ্রস্থ হই কিন্তু চোখ থেকে জলটা আর বেরোয় না।

মৃত্যশয্যায় মানুষের শেষ আর্তি আমি প্রত্যক্ষ করেছি

তাদের বুকের উপর দিয়ে যেন প্রবল ঢেউ বয়ে যায়

তাদের গলার স্বর যেন স্তব্দ হয়ে যায়,

তারা কিছু বলতে চায়,

কিন্তু শোনা যায় শুধু ঘরঘর আওয়াজ।

মানুষের মৃত্যুর আগে

তার স্বজনদের আহাজারিও আমি দেখেছি,

সত্যিই এ এক ব্যার্থ আহ্বান,

প্রয়াণের আগেই তাঁর অন্তরঙ্গরা তাঁকে মেরে ফেলে

নিষ্ঠুর ভাবে,

কান্নার শব্দে ভারি করে ফেলে এই ভুবন।

সে কিন্তু তখনো বেঁচে।

মানুষের শেষ বিদায়ের আগে,

তাঁর শেষ কথাটি শুনতে আমি একবার চেষ্টা করেছিলাম,

মৃত্যুশয্যার পিছনে দাড়িয়ে

সরাসরি না,

মন থেকে শুনতে চাইছিলাম।

কিন্তু ঐ দুখি হৃদয়গুলোর অকারন বিলাপের কারনে

মনোসংযোগ ঘটাতে পারেনি।

আবার শোনার চেষ্টা করি

কিন্তু তার আগেই তার লোকান্তরপ্রাপ্তি।

মানুষের মৃত্যু দেখে সাধারণত আমার কান্না পায়না সত্যি;

তবে দুইবার দুই দৃশ্য দেখে

সবার অলক্ষে চোখ থেকে দুফোটা

জল পড়েছিল অতি।

এক বাবার মৃত্যুতে তার এক ছেলের ভিষন করুনার্তি

আর একবার মাকে সমাধিস্ত করতে গিয়ে

তাঁর ছেলের আচমকা অপ্রাজ্ঞপ্রাপ্তি।

আমি সত্যিই ,

কাঁদিনা শুধু চোখের জল বাধনহারা।

আমি কিন্তু খুব বেশি মৃত্যু দেখিনি

খুবই অল্প নিথর মুখ দেখেছি

অনেকে বলে ,কিছু কিছু মৃতমুখ নাকি দেখতে

অনেক সুন্দর হয়,

তাদের কথাটা আমি অনেক ভেবেছি

তবে বুঝতে পারিনি,

অনেকের ঐ কথা আমার মনের অন্তেই রয়।

হয়তো আরো কিছু মৃত্যু আমাকে দেখতেই হবে,

কিন্তু স্বজনদের শোককি দেখতে পারবো?

এমনকি নিজের শেষযাত্রাও-

তবে জানিনা তা কবে?

হয়তো এখনি,কাল অথবা পরশু।

যেখানে মৃত্যুই শ্বাশত সত্য

তবে কেন মানুষ ফেলে মৃতের জন্য নিরর্থক অশ্রু?

মৃত্যু দেখলে কিন্তু আমি সত্যিই কাঁদিনা,

তবে মাঝে মাঝে মৃতবাড়ির কিছু

দৃশ্য দেখে চোখের কোনা থেকে

অজান্তেই একটুখানি নোনা জল পড়ে।

 

© তাসীন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here