বই- ভেন্ট্রিলোকুইস্ট
লেখক- মাশুদুল হক
প্রকাশনী- বাতিঘর
ঘরাণা- মিস্ট্রি
পৃষ্টা সংখ্যা-১৯১
মুদ্রিত মূল্য-২০০

বন্ধু জহিরের বিয়ে উপলক্ষে দেখা হয় পুরানো বন্ধু রুমি,মারুফ আর হাসানের।একজন সাংবাদিক,আরেকজন নৃবিজ্ঞানী এমন পেশায় জড়িত।তারা জানতে পারে তাদের আরেক বন্ধু শওকত এখন একজন ভেন্ট্রিলোকুইস্ট।তারা বুঝতেই পারছে না বাক সমস্যা নিয়ে সে কী করে ভেন্ট্রিলোকুইজম নিয়ে কাজ করছে।।
শওকতের এই রহস্য উন্মোচন করতে গিয়েই এক বিশাল বিপদে পড়ে তারা।তারা হাজির হয় ডাক্তার রুশদীর মানসিক হাসপাতালে।এই হাসপাতালে আবার মারুফ এর বোন বিলুও এডমিট রয়েছে।কিন্তু এই হাসপাতালে চলছে অন্যসব নৃশংস কর্মকান্ড।

চিকিৎসাবিজ্ঞান,বিজ্ঞান,ধর্মতত্ত্ব আরো অজানা সব এক্সপেরিমেন্ট বা নির্যাতন।
তারা মুখোমুখি হয় বিভিন্ন তথ্যের সাথে।আত্মার ওজন মাপা,হিউম্যান এক্সপেরিমেন্ট,ভিভিকেশন,বাহাইজম,বাব,হিরো ইশির বিভিন্ন পরীক্ষা,হিটলারের অনুগত বায়োলজিস্ট জোসেফ এর নির্যাতনময় এক্সপেরিমেন্ট ইত্যাদি।ঘটনাক্রমে তারা বিপদজনক এক জায়গায় আটকে পড়ে,তাদের উদ্ধারে সাহায্য করে মিলি।এরপরেই এক এক কাজে তারা নেমে পড়ে এবং রুশদীর রহস্য উদঘাটন করে।এই রহস্যের সাথে জড়িত রয়েছে আরো অনেক অনেক কিছু।

বইটা যেমন থ্রিলিং তার পাশাপাশি শিক্ষানীয় বিভিন্ন দিক ও রয়েছে।গোল্ডেন রেশিও,ফেবোন্নাচি সংখ্যা,হর্ষদ সংখ্যা,অকুলাস।আর বাংলাদেশে অফিসিয়ালি ১০ হাজার বাহাইজাম অনুসারী রয়েছে তা সত্যিই খুব চমকপ্রদ তথ্য।ভালোই লেগেছে।শুধুমাত্র শেষটা।রুশদী এত ক্ষমতাধর হওয়ার পরও সহজ পরিণতি,আর তার কবল থেকে সহজেই মিলি,রুমী আর মারুফের ফিরে আসাটা।
এককথায় থ্রিলিং আর বিভিন্ন তথ্যে ভরপুর!আমি ভেবেই কুল পাচ্ছিলাম না লেখক কত্ত অনুসন্ধান করেছে এসব নিয়ে।লেখক নিজে চিকিৎসাশাস্ত্র নিয়ে পড়ায় অনেক মেডিক্যাল টার্ম আলোচনা করেছেন।তা ভালোই লেগেছে।

রিভিউ- হাবিবা মাহমুদা।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here